সিলেট চেম্বারের আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে পরামর্শ সভা

  • আপডেট টাইম : October 03 2021, 18:37
  • 13 বার পঠিত
সিলেট চেম্বারের আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে পরামর্শ সভা

দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির ২০২২ ও ২০২৩ সালের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনকে সামনে রেখে শনিবার মহানগরীর একটি অভিজাত হোটেলে সম্মিলিত ব্যবসায়ী পরিষদের পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এসসিসিআইর সাবেক সভাপতি ফখর উদ্দিন আলী আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী আগামী নির্বাচনে নতুন প্রজন্মের ব্যবসায়ীদের গুরুত্ব দেওয়ার ও ব্যবসায়ীদের স্বার্থ সংরক্ষণে যোগ্য প্রার্থী নির্বাচনের আহবান জানান।
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল আশা প্রকাশ করেন, সিলেট চেম্বার ব্যবসায়ীদের সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে কাজ করবে।
সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি সভাপতি আবু তাহের মো শোয়েব গত দুই বছরের কার্যক্রমের বিবরণ দিতে গিয়ে সংগঠনরে সদস্যদের নিয়ে প্রথমবারের মতো মিলনমেলা আয়োজন, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার সময় ছাত্র-ছাত্রীদের পরিবহনের জন্য বিনাভাড়ায় ২০টি বাসের ব্যবস্থাকরণ, নারী উদ্যোক্তা সম্মেলন, সিলেটের করোনা রোগীদের চিকিৎসার্থে তহবিল গঠন ও বিভিন্ন হাসপাতালে জরুরি চিকিৎসা সরঞ্জাম প্রদান ইত্যাদি বিষয় উল্লেখ করেন।
তিনি জানান, চলমান করোনা মহামারির কারণে তাদের কার্যক্রম ব্যাপকভাবে বাধাগ্রস্ত হয়েছে। আগামী নির্বাচনে তাদের প্যানেল নির্বাচিত হলে তারা অবশিষ্ট কাজ সম্পন্ন করতে পারবেন বলে আশা রাখেন।
সাবেক সভাপতি ফারুক আহমদ মিছবাহ বলেন, আগামী প্রজন্ম উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করে ব্যবসা-বাণিজ্যে প্রবেশ করছে। তাদের জন্য জায়গা তৈরি করে দিতে হবে। বাংলাদেশে অনেকগুলো স্পেশাল ইকোনমিক জোন প্রতিষ্ঠা হয়েছে, কিন্তু সিলেটে এখনও হয়নি।
এসসিসিআইর সহ সভাপতি তাহমিন আহমদ বলেন, চলমান করোনা পরিস্থিতি সত্ত্বেও তারা ব্যবসায়ী ও জনসাধারণের কল্যাণে অনেক কাজ সম্পন্ন করতে পেরেছেন। আগামীতে নির্বাচিত হলে সিলেটের ব্যবসায়ীদের কল্যাণে আরো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারবেন।
সভাপতির বক্তব্যে ফখর উদ্দিন আলী আহমদ বলেন, সিলেট চেম্বারের বর্তমান পরিচালনা পর্ষদ দায়িত্ব গ্রহণের পর অনেক গুরুত্বপূর্ণ কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। বর্তমান সভাপতি অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে সংগঠন পরিচালনা করেছেন। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব না হলে কার্যক্রম আরো বিস্তৃত হতো।
পরামর্শ সভায় উপস্থিত ছিলেন, সিলেট সদর উপজেলার পরিষদ চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, নর্থ-ইস্ট মেডিক্যাল কলেজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা শাহরিয়ার হোসেন চৌধুরী, প্রাইভেট হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টিক এসোসিয়েশনের সভাপতি ডা নাসিম আহমদ, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক ইকবাল সিদ্দিকী, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ছামির মাহমুদ, এসসিসিআইর জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি চন্দন সাহা, সাবেক জ্যেষ্ঠ সহ ভাপতি মো হিজকিল গুলজার, পরিচালক মো মামুন কিবরিয়া সুমন, মুশফিক জায়গীরদার, ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, ওয়াহিদুজ্জামান চৌধুরী (রাজিব), ফখর উস সালেহীন নাহিয়ান, সাবেক সহসভাপতি মো দিলওয়ার হোসেন, ফরিদ বক্স, ইফতেখার আহমদ সোহেল, সাবেক পরিচালক ফটিক চন্দ্র সাহা, এনামুল কুদ্দুছ চৌধুরী, এজাজ আহমদ চৌধুরী, মো বশিরুল হক, ব্যবসায়ী নেতা শেখ মো মকন মিয়া, আব্দুর রহমান রিপন, মো মোস্তাফা কামাল, হুরায়রা ইফতার হোসেন, আব্দুল হাদি পাবেল, মো সানাউল্লাহ্ ফাহিম, মো নাজমুল হক, আব্দুল মুনিম মল্লিক, মনোয়ার হোসেন মুন্না, মো আলা মিয়া, মো কয়ছর আলী, নিয়াজ মো আজিজুল করিম, মঞ্জুর আহমদ, ফয়েজ আহমদ চৌধুরী, শাফি মোহাম্মদ নাহিয়ান, আবু সালেহ এহিয়া, এম এ হান্নান, মো মাহবুবুল হাফিজ চৌধুরী মসফিক, কুবেব হোসেন, আহমেদ ফুয়াদ বিন রশিদ, মো আমজাদ আলী, মিলওয়ার হোসেন মিলাদ, হোসেন আহমদ প্রমুখ।-সংবাদ বিজ্ঞপ্তি