নবীগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে ‘নৌকা’র প্রত্যাশী ৬৯ চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারণ আজ

  • আপডেট টাইম : October 26 2021, 04:01
  • 16 বার পঠিত
নবীগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে ‘নৌকা’র প্রত্যাশী ৬৯ চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারণ আজ

উত্তম কুমার পাল হিমেল, নবীগঞ্জ : আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আর মাত্র ৩২ দিন বাকি। নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই ভোটারদের নজরকাড়ার চেষ্টায় ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন চেয়ারম্যান পদের সম্ভাব্য প্রার্থীরা। প্রতিদিন অনেকটা যেচে যেচেই যোগ দিচ্ছেন বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে। ভোটারদের দরজায় কড়া নাড়া থেকে শুরু করে মাঠেঘাটে টুকরি-কোদাল নিয়ে মাটিকাটার ছবি তুলে ফেসবুকে আপলোড করে নিজেকে অন্যদের চেয়ে বেশি এগিয়ে রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছেন কেউ কেউ। আরও কত কি করছেন।
আগামী ২৮ নভেম্বর নির্বাচনের তারিখ। যেহেতু দলীয় পরিচয়ে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা। তাই ভোটারদের মূল আগ্রহ কে আসছেন ‘নৌকা’ প্রতীক নিয়ে । কারণ বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেনা। তবে দলটির অনেক নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।
নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ ইতোমধ্যে বর্ধিত সভা করে প্রত্যেক ইউনিয়নে একক প্রার্থী দিতে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সভায় দলের জেলা সভাপতি সাংসদ অ্যাডভোকেট আবু জাহির ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আলমগীর চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন; কিন্তু একাধিক প্রার্থী থাকায় শেষপর্যন্ত ১৩ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৬৯ জনের তালিকা কেন্দ্রে প্রেরণ করা হয়েছে।
বুধবার আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে নবীগঞ্জ উপজেলার ১৩ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দলীয় মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। আজ এই মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ভাগ্য নির্ধারণ অর্থাৎ প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত হওয়ার কথা রয়েছে।
আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন, বড় ভাকৈর (পশ্চিম) ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সমর চন্দ্র দাশ, সহ প্রচার সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধার সন্তান গৌতম কুমার দাশ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো ইসলাম উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক সমীরণ দাশ, ছাত্রলীগ সিলেট মহানগর শাখার সাবেক সদস্য মরুক কান্তি চৌধুরী, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ মহানগর শাখার প্রচার সম্পাদক রাজেশ চন্দ্র দাশ রাজু ও ছাত্রলীগ সিলেট মহানগরীর রায়নগর শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক রূপক চন্দ্র দাশ।
ভাকৈর (পূর্ব) ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য তিন বারের নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান মেহের আলী মালদার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান মো আক্তার মিয়া, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি প্যানেল চেয়ারম্যান মো খালেদ মোশারফ ও ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য মো জাকারিয়া হোসেন বকুল।
ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান সাংবাদিক মো রাকিল হোসেন, মো নোমান হোসেন, যুক্তরাজ্য প্রবাসী মো আছাবুর রহমান জীবন, মো ছায়েদুল হক ও ইউনিয়ন যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আশাহীদ আলী আশা।
দীঘলবাঁক ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি দুই বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান মো আবু সাঈদ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো গোলাম হুসাইন রব্বানী, ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কুয়েত প্রবাসী রুহুল আমিন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো আবু ছালেহ ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাজ্জাদুর হক।
আউশকান্দি ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি দুইবারের নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান দিলাওর হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুর রহমান নোমান, সিলেট সরকারি কলেজ ছাত্রাবাস ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শফিউল আলম হেলাল, ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো আশিকুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সৈয়দ এন আলী এহিয়া, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোতাচ্ছির হোসেন খান, ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক আহবায়ক জেলা পরিষদ সদস্য মো আব্দুল মতিন আছাব ও উপজেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা সন্তান মো নিজামুল ইসলাম চৌধুরী।
কুর্শি ইউনিয়নে তিনবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান আলী আহমেদ, উপজেলা কৃষক লীগের সদস্য মো আব্দুল মুকিত, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী মো ওবায়দুল কাদের হেলাল, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ছইফা রহমান কাকলী, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ অনর উদ্দিন জাহিদ, নবীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি মো আব্দুল বাছিত চৌধুরী ও আওয়ামী লীগ ইংল্যান্ডের সাসেক্স শাখার সদস্য আবু তালিম চৌধুরী নিজাম।
করগাঁও ইউনিয়নে নরীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্মল দাশ রানা, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বজলুর রহমান ও ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুছ সাগর।
নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়নে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বর্তমান চেয়ারম্যান সাজু আহমেদ চৌধুরী, যুবলীগ নেতা মো হাবিবুর রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা খসরু আহমেদ ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা মাকাচ্ছিন মিয়া মহসীন।
বাউসা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান মো আবু সিদ্দিক ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা জুনেদ হোসেন চৌধুরী।
দেবপাড়া ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল মোহিত চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান আ খ ম ফখরুল ইসলাম, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম ও ইংল্যান্ড প্রবাসী যুবলীগ নেতা মো নূরুল শরীফ (হুদা)।
গজনাইপুর ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও করোনাকালে চাল আত্মসাতের দায়ে স্থায়ী বরখাস্তকৃত চেয়ারম্যান ইমদাদুর রহমান মুকুল, আওয়ামী লীগ নেতা সাবের আহমেদ চৌধুরী, ডা আব্দুল কাইয়ূম সেলিম, সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো জমশেদ আলী, বর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সৈয়দ মাহবুব আলী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা শেখ মাসুদুর রহমান, শাহ তোফায়েল আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো আজমান আলী, ওবীর মুক্তিযোদ্ধা সাম আহমেদ।
কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান ইমদাদুল হক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ আহমদ ও যুক্তরাজ্য জাতীয় শ্রমিক লীগের সহসভাপতি শাহ শহীদ আলী।
আওয়ামী লীগের মনোনয়ান প্রত্যাশীরা কয়েকদিন ধরে ঢাকায় অবস্থান করছেন।
আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টার সময় আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হব বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। আরও জানা গেছে, যে সকল ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যানরা দলীয় মনোনয়ন চেয়েছেন তাদেরকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।