জঙ্গিবাদ রুখতে সংস্কৃতির প্রসার ঘটাতে হবে : সিলেটে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ

  • আপডেট টাইম : November 14 2021, 18:27
  • 20 বার পঠিত
জঙ্গিবাদ রুখতে সংস্কৃতির প্রসার ঘটাতে হবে : সিলেটে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, জঙ্গিবাদ রুখতে সংস্কৃতির প্রসার ঘটাতে হবে। অনুষ্ঠান করতে হবে গ্রামে-গঞ্জে। এ কাজে সর্বাত্মত সহযোগিতা করতে প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
রবিবার সন্ধ্যায় সিলেট মহানগরীর কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ আবৃত্তিশিল্পী সংসদের দেশব্যাপী আবৃত্তি আয়োজন ‘উচ্চকন্ঠে উচ্চারো আজ মানুষ মহীয়ান’ উদ্বোধন পর্বে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, জঙ্গিবাদ দমনে গণজাগরণ সৃষ্টিতে আবৃত্তি ভূমিকা রাখতে পারে।
কে এম খালিদ বলেন, আগে অনুষ্ঠান হতো জনে জনে চাঁদা নিয়ে। আর এখন হয় ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান থেকে অনুদান নিয়ে। তাই মান কমে গেছে।
তিনি বলেন, সিলেট অঞ্চল লোকসংস্কৃতিতে সমৃদ্ধ। তাই সিলেটকে সম্পৃক্ত করে সুনামগঞ্জকে লোকসংগীতের নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার চিন্তাভাবনা করছে। এছাড়া সাধককবি রাধারমণ দত্ত ও বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিমের বাড়িতে স্মৃতিসংরক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে।
মুজিববর্ষে প্রতিটি জেলায় বইমলার আয়োজন করা হচ্ছে। তাতে আবৃত্তির জন্যে আলাদা সময় নির্ধারিত থাকবে বলেও তিনি জানান।
আয়োজন উদ্বোধন করেন, কবি তুষার কর। বিশেষ অতিথি ছিলেন, সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম ও সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ। সভাপতিত্ব করেন, অনুষ্ঠান উদযাপন পরিষদের আহবায়ক প্রফেসর শামীমা চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সদস্য সচিব সুকান্ত গুপ্ত। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ আবৃত্তিশিল্পী সংসদের কেন্দ্রীয় আহবায়ক আবৃত্তিশিল্পী জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায় ও সদস্য সচিব রূপা চক্রবর্তী। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক গৌতম চক্রবর্তী ও সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজতকান্তি গুপ্ত। উপস্থাপনায় ছিলেন, নন্দিতা দত্ত ও ‍রুহেনা দিপু। এছাড়া নীলাঞ্জনা জুঁইয়ের পরিচালনায় নৃত্যশৈলী উদ্বোধনী নৃত্য পরিবেশন করে।
দেশের প্রতিটি বিভাগীয় শহরে এই আযোজন করা হবে বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন।