মাধবপুর পৌর এলাকায় সরকারি খালের উপর ঘর নির্মাণে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী

  • আপডেট টাইম : December 11 2021, 10:22
  • 50 বার পঠিত
মাধবপুর পৌর এলাকায় সরকারি খালের উপর ঘর নির্মাণে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী

মাধবপুর প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের মাধবপুরে সরকারি খালের উপর ঘর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
মাধবপুর পৌরসভায় নতুন গরুবাজার এলাকায় এই ঘর নির্মাণ নিয়ে ক্ষোভ বিরাজ করছে এলাকাবাসীর মধ্যে। তবে নির্মাতাদের দাবি, তারা সরকারি জায়গায় নয়-নিজেদের জায়গায় ঘর নির্মাণ করেছেন।
এলাকাবাসী জানান, পৌর এলাকার নোয়াগাঁও সেতু থেকে নতুন গরুবাজার যাওয়ার রাস্তায় সরকারি খালের উপর ঘর নির্মাণ করেছেন বাড়াচান্দুরা গ্রামের কায়সার আহমেদ, তার ভাই জাবেদ মিয়া, পূর্ব মাধবপুর গ্রামের সৈয়দ মিয়া পাঠান ও মুরাদপুর গ্রামের সাদ্দাম হোসেন ।
নতুন গরুবাজার থেকে গঙ্গানগর এলাকায় যাওয়ার রাস্তার পাশেই খাল। তাই রাস্তা বাঁচাতে গার্ডওয়াল নির্মাণ করেছে পৌরসভা। অথচ এই গার্ডওয়ালের উপর দেওয়াল দিয়েই ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। ফলে খালটি নাব্যতা হারিয়ে জলাবদ্ধতার কারণ হয়ে যেতে পারে।
এক সময় এই খাল দিয়ে নৌকা চলাচল করতো; কিন্তু দিন দিন সরু হয়ে যাচেছ। তাউপর এভাবে দখল চলতে থাকলে খালটি হারিয়ে যাবে বলে পরিবেশকর্মীরা আশংকা করছেন।
ঘর নির্মাতা কায়সার আহমেদ জানান, তিনি সহ ৪ জন পৌরসভার গংগানগর এলাকার মৃত ফরচান ঋষির ছেলে সুশীল ঋষির নিকট থেকে ২ শতক জায়গা কিনে সেখানেই ঘর নির্মাণ করেছেন।
সুশীল ঋষি জানান, তার জায়গা ভেঙ্গে খালে চলে যাওয়ায় সেই জায়গাতেই ঘর নির্মাণ করা হয়েছে।
মাধবপুর পৌরসভার মেয়র হাবিবুর রহমান মানিক জানান, তার সময়ে এই ঘর নির্মাণ হয়নি। সাবেক মেয়র হিরেন্দ্র লাল সাহার সময়ে ঘর নির্মাণের অনুমোদন নেওয়া হয়েছে।
পৌরসভার সার্ভেয়ার আশীষ জানান, তারা যে কাগজপত্র দিয়েছে সে অনুযায়ী অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তবে নকশা বহির্ভুত কাজ হয়েছে কি না জানতে চাইলে তিনি কোন উত্তর দিতে পারেননি।
সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ মহিউদ্দিন জানান, বিষয়টি নিয়ে অনেকে অভিযোগ করছেন। সরকারি সার্ভেয়ার দিয়ে জায়গাটি মেপে দেখা হবে। সরকারি জায়গায় বা খাল দখল করে কাউকে স্থাপনা নির্মাণ করতে দেওয়া হবে না।