বাংলাদেশ তথ্য প্রযুক্তির বিকাশে স্বল্প সময়েই অকল্পনীয় সাফল্য অর্জন করেছে

  • আপডেট টাইম : December 12 2021, 17:22
  • 50 বার পঠিত
বাংলাদেশ তথ্য প্রযুক্তির বিকাশে স্বল্প সময়েই অকল্পনীয় সাফল্য অর্জন করেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ তথ্য প্রযুক্তির বিকাশে স্বল্প সময়েই অকল্পনীয় সাফল্য অর্জন করেছে। তাই করোনার মতো বৈশ্বিক মহামারিকালেও থেমে থাকেনি উন্নয়ন ধারা। তথ্য প্রযুক্তির এই বিকাশ কেবল জীবনযাত্রাকে গতিশীল করেনি একই সঙ্গে ব্যাপক কর্মসংস্থানেরও সুযোগ সৃষ্টি করেছে।
ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস উপলক্ষে রবিবার সকালে সিলেট জেলা প্রশাসন আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা এ অভিমত ব্যক্ত করেন।
জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম। মুখ্য আলোচক ছিলেন, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিৎ সিনহা। বিশেষ অতিথি ছিলেন, সিভিল সার্জন ডা প্রেমানন্দ মণ্ডল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ আফজাল, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আল আজাদ ও বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের আঞ্চলিক পরিচালক আব্দুল হান্নান চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) সত্যজিত রায় দাশ। এছাড়া সরকারি বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
স্বাগত বক্তব্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) সত্যজিত রায় দাশ গত এক যুগে তথ্য প্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশের সাফল্যগাথা তুলে ধরতে গিয়ে জানান, নিজস্ব ডাটাসেন্টার স্থাপনে বাংলাদেশ বিশ্বে ৭ম। অনলাইনে আয়ে বিশ্বে দ্বিতীয় আর দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথম স্থানে আছে।
বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের আঞ্চলিক পরিচালক আব্দুল হান্নান চৌধুরী তথ্য প্রযুক্তির সম্প্রসারণে সরকারের বিভিন্ন পরিকল্পনা তুলে ধরেন।
সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আল আজাদ বলেন, একদিন যারা ‘ডিজিটাল’ শব্দটির বিকৃত ব্যাখ্যা দিতেন তারাও শেষপর্যন্ত ‘ডিটিজাল’ হয়ে নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখছেন।
মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন সকল চক্রান্তের জাল ছিন্নভিন্ন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রাকে আরও গতিশীল করতে ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।
মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ বলেন, বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্ন নিয়ে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন, সেই স্বপ্ন পূরণে বঙ্গবন্ধুকন্যা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন।
মুখ্য আলোচক সিলেট জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিৎ সিনহা বলেন, বাংলাদেশ এত দ্রুত তথ্য প্রযুক্তির বিকাশ ঘটিয়েছে যে, অনেকে কল্পনাই করতে পারেনি। নতুন প্রজন্মকে এই অগ্রযাত্রাকে আরও গতিশীল করতে হবে।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিন বদলের ডাক দিয়ে রায় নিয়েছিলেন দেশবাসীর। তিনি কথা রেখেছেন। বাংলাদেশে দিন বদলে গেছে।
সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা যখন ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন তখন তা অনেকের কাছেই অবিশ্বাস্য মনে হয়েছিল; কিন্তু মাত্র ৩ বছরেই বাংলাদেশ প্রমাণ করে, ইচ্ছে, উদ্যোগ, উদ্যম, মনোবল আর পরিকল্পনা থাকলে অসম্ভব কিছু থাকেনা।
তিনি তথ্য প্রযুক্তির বিকাশে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয়ের অসামান্য অবদানের কথা তুলে ধরেন।
জেলা প্রশাসক বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে উপনীত করতে সবার সম্মিলিত উদ্যোগের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।